poem by abdul mannan

যমুনা

যমুনার দুই পার জীবনের দুই দিক,
খেলে যায় খেলা তার ভাবে না কোন দিক।
বর্ষায় উথলা হয়ে উঠে পানি তার্,
কেরে নেয় বাড়ি-ঘর করে দেয় ছারখার।

মাঝে মাঝে গর্জন উকি দেয় আকাশে ,
জেলে ভাই ফেরে তাই করে মুখ ফ্যাকাশে।
ভরে উঠে দুইকুল বর্ষার জলেতে ,
ডুবে যায় বাড়ি-ঘর গড়ে ওঠা চরেতে।

ঢেকে যায় জলেতে জেগে থাকা কাশবন,
পশু মরে না খেয়ে ডূবে গেলে ঘাশবন।

জানিনা

বিকেল।সুর্য কিছুটা হেলে গেছে। তেজ ও কম।তবে আলো আছে।ধুসর।আমার খুব ইচ্ছে হল অনলাইনে যাওয়ার।দেখলাম সবুজ বাতি নেভে নাই।ট্রাফিক লাইট আর ওয়েব পেজের আলোর মাঝে মিল আছে কিনা বুঝি না তবে দুটোই ট্রাঞ্জিয়েন্ট।
”হ্যাঁ আছেন ?” আমি লিখলাম।

বেশ কিছু টা সময় পেরিয়ে গেল।হলুদ বাতি জ্বলে উঠলো।ঐ দিন আর কিছু লেখা- টেকা হল না। প্রস্ন-ট্রস্ন ও করা হল না। মানুষের ক্ষমতা না থাকলে ও ভদ্রতা থাকে। আমাকেও ঐ টুকু রক্ষা করার জন্য অপেক্ষা করতে হয়।
উনি আমার নাম দিয়েছিলেন এলিয়েন। দিয়েছিলেন মানে ঐ নাম টা আমার জন্মের সময় রাখা হয় নাই।

বিবর্তন।পনের সাল পর নাম টা আবার পরিবর্তন হয়ে যায়।এই জন্য তিনি দায়ী নন ঠিক ই কিন্তু বিচ্ছেদ। কেউ আর আমাকে ঐ নামে ডাকার নেই। লেখায় নাকি খুব স্মার্ট ছিলাম। লেখায় বললাম কারন তাঁর সাথে আমার কক্ষনোই দেখা হয় নাই।প্রযুক্তির কৃপায় পরিচয় হয় ওয়েব পেজে।ওনাকে জানার অজুহাতে পলিসি করে প্রশ্ন করতাম।লাভ হয় নাই।

এইচটিএমএল#০০০০০০ ফলাফল এসেছে।তাঁর জীবনের গল্প গোপন করলাম।ছয়টা শুন্য দিয়ে।সাদা কাপড়ের উপর আবরণ দিলাম। প্লে অফ লাইফ ইজ আ প্লে অফ কালার।সব ভুলে গেলাম।নাউ এলিয়েন ইজ রিপ্লেসড।
১৫ সাল পেরিয়ে গেছে।শত-শত বার হয় তো সবুজ আলো জ্বলেছে।

কিন্তু আমার আর দেখা হয় নাই,বলেন।
খুব মনে পরে তাঁকে।না ভুল হয়ে গেল। তাঁর একটা কথা মনে পরে। সেদিন টিভি দেখছিলাম।আবার সেই ওয়েব পেজ।ইরেজার। তবু ও দেখতে থাকি।একজন মাইক্রোফোন মুখের সামনে ধরে জিজ্ঞেস করছে,’ আপনি তো রিকশা চালান; তাও বন্ধ হয়ে গেছে বললেই চলে। আপনি পরিবার নিয়ে কিভাবে চলবেন এখন?

ঘাড়ের গামছা টা দিয়ে চোখ মুছল সে। উত্তর দেয়া তার পক্ষে কঠিন।পাটের থলে মোটা কিন্তু পানি ধরে রাখতে পারে না।মেয়ে টা উত্তর দেয় যে ভাষায়; তা আমাকে ১৫ বছর আগে নিয়ে যায়।
তাঁকে আমি একবার লিখেছিলাম,’আপনি আমার কে ?’
ওপার থেকে ভেসে আসে সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডের উপর কাল কালির জবাব, জানিনা।

২০২০ সাল। ভয়াল করোনা লাখ-লাখ মানুষের জীবন কেরে নেয়।মানুষের পৃথিবী নামক গ্রহের প্রতি ভালোবাসা থাকলে ও তিক্ততার জন্ম হয়েছে। জ্ঞানীরা দিশেহারা।রাষ্ট্রপ্রধানরা অস্থির। কিয়ামত নয় তবে তার ন্যায়।আকাশে তীর ছুড়লে হয় তো অলৌকিক দেবতাদের গায়ে লাগতে পারে। কিন্তু করোনা সকল কে ‘’ জানিনা ‘’ বলতে বাধ্য করেছে।
আমার তন্দ্রা পেলে মনে পরে যায়। তুরুস্কের একটি প্রদেশের কথা।

সপ্তদশ শতাব্দীতে তুর্কি অত্যাচারিদের হাত থেকে বাঁচার জন্য কিছু মানুষ “জানিনা” তে পলায়ন করে। আধুনিক সভ্যতার গন্তব্য কি তাহলে ‘জানিনা’?

poem by abdul mannan

Facebook Comments