Mustafizur Rahman Poem

পাড়ি

সেই যে তুমি বলেছিল, বুক পেরোলেই
ছোট্ট নদী – ঠিক যেন সেই নীলচে আঁচল
তীর ধরে তার সবুজ গাঁ –
রোদ জড়িয়ে থাকে উঠোনের কোলে কোলে রাঙা পথ ছুঁয়ে যায় মেঘের ডানা
তুমি বলেছিলে,গাছেরা কেমন নিজের ছায়া
আগলে রাখে শেকড় – বাকড়
ডালে ডালে বাবুই পাখির বাসা
শুকনো পাতারা স্নান সারে ধূলোবালি
নির্জনে আঙুল ছোঁই ধানের শিস্
শিশির মাখা হাসনুহানা –

তুমি বলেছিলে, ঠোঁট পেরোলেই
গহিন মেঘ – দূরে কোথাও বৃষ্টি পড়ে
ঝমঝমিয়ে দূরে কোথাও
বেপরোয়া ঝড় এলোমেলো
উড়লো আঁচল, মুছলো কাজল
ঘরে ফেরা সব পাখির ডানা
উধাও হলো এক নিমেষে

বলেছিলে, পাড় বাঁধা ডিঙি
পালিয়ে স্রোত সঙ্গে নিয়ে
উধাও কেবল একলা দাঁড়
তোমার জন্য স্পর্শকাতর
ঢেউ ভাঙে ঢেউ নিরুদ্দেশে…

Mustafizur Rahman Poem

বৃষ্টি আক্ষেপ

এখনও স্পষ্টভাবে করতে পারি অঙ্গীকার
তোমাকে কোনো দিন দেখিনি,
আজন্মেও নয়

এখনও আমি অবিরাম মেঘে আচ্ছন্ন

এখনও আমি মিথ্যে করে
তোমার জন্য কাঁদতে পারি

এখনও অচেনা বৃষ্টি মাখি
যে প্রতিজ্ঞার বৃষ্টি তুমি কখনও দেখনি

অবাদ ঝরে পড়ে অস্তমিত চোখের মণি

অসংখ্য যত্নের ধূলোবালি ওড়ে
অশান্ত বাতাসের দাপট

এখনও নিহারীকার আলোক
সাজিয়ে দিই তোমার কোপালে

সূর্য বিলি করে গলন্ত হৃদয়

এখনও শোনা যায় ভোরের ভৈরবী
গুটি গুটি পায়ে হেঁটে চলে নদী, স্তব্ধতায়

শূন্যতা ফিরিয়ে দিয়ে ছিল মহাকাশ

এখনও উৎক্ষিপ্ত মিছিলের শ্লোগান

তখনও আগুন জ্বলে শিরা-ধমনীতে
শুধু তোমাকে শ্রান্ত করার উদবেগ

তখনও আমি মেঘে মেঘে মেঘাচ্ছন্ন

সারা দেহ জুড়ে বিক্ষিপ্ত ভূমিকম্পন

তখনও প্রলোভন ছাড়া অজস্র গ্রাস
এক ফোঁটা কাঁদতে পারিনি তোমার জন্য

ক্ষুব্ধতার নিরাশ্রয় ভালবাসা
নিকট হয়েছে দুঃস্বপ্নের বীজ

আমার সিলেবাসে চিরন্তন অধ্যায়
সময় অসময় তীব্র বসন্ত

ঠোঁট কাঁপা আক্ষেপ অনন্ত

সময় অসময় ঝামঝমিয়ে বসন্ত …

Mustafizur Rahman Poem

Facebook Comments