কবিতা প্রিমিয়াম সদস্য সাহিদা রহমান মুন্নীর কবিতা

মা তুমি আমার মা

মে ১০, ২০২০
mothers day 2020

” মায়ের একধার দুধের দাম,কাটিয়া গায়ের চাম
পা পোস বানাইলেও ঋনের শোধ হবেনা —-”

মা, পৃথিবীতে সবচেয়ে ছোট শব্দ কিন্তু সব চেয়ে গভীরতম শব্দ, যার ব্যপ্তি বিশ্বজোড়া । যার সৌন্দয স্বগীয়সম ।মা, যার সবকিছুতেই এক অন্যরকম ভালোলাগা বিরাজমান । মা’র কথা, মা’র হাসি,মা’র আদোর-শাষন কি নেই যা আন্দোলিত করেনা । মা’বলে ডাকতে পারলেও যেনো এক অনোবদ্ধ মুগ্ধতা ছুয়ে যায় অন্তর থেকে বাহিরে–। মা’ চীরসবুজ একটি ডাক, চিরসত্য একটি আনন্দধারা । মা’ আছে বলেই ভালোলাগায় ছেয়ে থাকে চারিপাশ ।

শত ক্লান্তিতে যখন থেমে যায় পদোচ্চারন তখন মা’ যদি একবার স্নেহের ছোয়ায় হাত বুলান, বিদ্যুত শক্তির মতো যেনো নতুনভাবে সোচ্চার হয়ে উঠি-মা’ সন্তানের আগুয়ান পথে দীপ্ত চালিকা শক্তি । জীবনের ব্যস্ততায় বাইরের জগতের কাজের শেষে যখন বাসায় ফিরি আর আমার মায়ের মুখ দেখি,ম্যাজিকের মতো দূর হয়ে যায় আমার সব ক্লান্তির বলিরেখা গুলো । মা’ অন্ধকার ঘরে যেনো আলো ঝলমল বাতি ।যার ছায়াতলে আমি বারবার আলোকিত হই । মা’ জন্মের পূ`ব থেকেই একটু একটু করে নিজেকে বিলিন করে দেয় সন্তানের মঙ্গলবারতার খোঁজে ।

যখন পদোদলিত হই স্বাথবাদি এ সমাজের বাঁকা রোষানলে তখন 'মা' তার আদশের মন্ত্রে – আমার বিদ্ধস্ত মানুষিক যনত্রনা গুলো হাওয়ার মতো উড়িয়ে দেন । মা’আমার সারাদিনমানের এক অবিচ্ছেদ্দ অংশ ।আমি যা আমার ভিতরে রপ্ত করেছি তা সবি আমার মায়ের কারনেই । মা’ সব কাজে সবার আগে উৎসাহের ঝান্ডা হাতে উৎসাহিত করে যান ।শিক্ষা নাওয়া-খাওয়া পড়াশুনা সামাজিকতা,সেবা, আর শ্রেষ্ঠ নিভরতম বন্ধুত্বে মা' যেনো এক অতুলনীয় ভুমিকায় সন্তানের জীবনে বিরাজমান ।সবভাবেই সন্তানের মঙ্গল ই যেনো তাঁর ব্রত । অথচ অনেক এমন কুলাঙ্গার সস্তান আছে যারা এই মা’ কে ফেলে আসে বৃদ্ধাশ্রমে কিংবা অনাদরে অবহেলায় ফেলে রাখে ঘরের চিপা এক কামরায় নষট হওয়া আসবাব পএের মতো !

তাঁর চশমার ফ্রেম ,ঔষধ, কিংবা ভালো একটা শাড়ী তা কিনতে যনো দেউলিয় হয়ে যায় অনেক স্বাবলম্বি সন্তান !মা’র জন্য কিছু কিনবে তাতে যেনো মাথায় বাঁজ পরে! অথচ স্এী সন্তান নিয়ে হলিডে ,রেস্টুরেন্টে খাবার, বন্ধু নিয়ে আড্ডা,বৌয়ের শত আবদার তাতে যেনো উপচে পরে টাকার ফুলঝরি । অথচ এই সস্তান যখন জানান দেয় সে আসবে–আসছে ঠিক তখন থেকেই মা প্রস্তুত হতে থাকেন এই সন্তানের পরিপূ`ন চাহিদার যোগান দিতে।

যখন জন্ম নেয় তখন এই সন্তান কতইনা অসহায় থাকে,বলতে পারেনা চলতে পারেনা মা তাঁর অনুভব দিয়ে সন্তানের ক্ষুধা অসুস্হতা সব নিবারন করেন ।মা তো ফেলে আসেন না সন্তানকে শিশুআশ্রমে তবে এই মা কন যাবে বৃদ্ধাশ্রমে? মা তুমি শুধু তোমার তুলনা, সন্তানের জন্য তোমার যে ত্যাগ তা কোন সন্তান কোনদিন শোধ করতে পারবে না । মা তুমি আমার মা–যদি চুষ কাগোজ হতে পারতাম যদি এতটুকু ক্ষমতা বিধাতা দিত,তোমায় আমি আকাশের চেয়েও উচ্চাসনে রাজরানী বানিয় বসাতাম–আজিবন তোমার পদোতলে কাটিয়ে দিতাম আমার প্রতিটা নিঃশ্বাস ! মা আমি তোমায় অনেক অনেক বেশি ভালোবাসায় ভালোবাসি ‘মা’ তুমি আমার ‘মা’ ।।

You Might Also Like

No Comments

Please Let us know What you think!?

Translate »
%d bloggers like this: