coronavirus Bangladesh update

করোনা ভাইরাস এ আক্রান্ত রোগীরা লক্ষণ সমূহ নিজেরাই অনুভব করতে পারেন:

১. ভাইরাস শরীরে ঢোকার পর সংক্রমণের লক্ষণ দেখা দিতে প্রায় ২-১৪ দিন লাগে।
২. বেশির ভাগ ক্ষেত্রে প্রথম লক্ষণ জ্বর(১০০ ডিগ্রি বা বেশি)।
৩. এছাড়া শুকনো কাশি/ গলা ব্যথা হতে পারে।
৪. নাক দিয়ে জল পরা।
৫. শ্বাস কষ্ট/ নিউমোনিয়া দেখা দিতে পারে।
৬.পাতলা পায়খানা ( severity বেশি হলে)
৭. অন্যান্য অসুস্থতা (ডায়াবেটিস/ উচ্চ রক্তচাপ/ শ্বাস কষ্ট / হৃদরোগ/ কিডনী সমস্যা/ ক্যান্সার ইত্যাদি) থাকলে অরগ্যান ফেইলিওর বা দেহের বিভিন্নপ্রত্যঙ্গ বিকল হতে পারে।

তাই উপরোক্ত লক্ষন যদি আপনার মধ্যে থাকে তাহলে আপনার প্রথম কাজ ঘরেই অবস্থান করা। জ্বর, ঠান্ডা, কাশি হলে ডাক্তারের কাছে আগেই যাওয়ার দরকার নেই নিম্নোক্ত প্রেসক্রিপশনে উল্লেখিত ঔষধ সমূহ সাতদিন খেতে থাকুন ।

Tab. Napa rapid 500mg/Napa Extend/ 665mg ( ভরা পেটে) ।
১+১+১– (৭দিন)।
Tab. Deslor / Tab. Fexo (120/180)
১+০+১–(৭ দিন)।
Tab. Monas/Trilock/Lumona10mg
০+০+১–(৭দিন)।
Syp.Ambrox/ Dexpofen/Tuska plus
২ চামচ করে ৩ বেলা–(৭দিন)
(কাশি বের হলে)।
Tab.Ometid 20mg
১+০+১————- ৭ দিন
( খাবার আগে) ।
যদি শ্বাসকস্ট হয় :——
Inhaler Bexitrol F
১ কাফ ১২ ঘন্টা পর পর ।
(হাপানি রোগীরা বাড়িতে আগে থেকে অবশ্যই
নেবুলাইজার মেশিন রাখবেন এবং windal plus দিয়ে নেবুলাইজ করবেন)।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিঃ

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় সমগ্র বাংলাদেশ ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা সংক্রমক রোধ আইনের ক্ষমতাবলে ৩টি নির্দেশনা

১। অতি জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়া যাবে না।
২। চলাচলে কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রনারোপ।
৩। সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত ঘরের বাইরে বের হওয়া যাবেনা।

নির্দেশ না মানলে কঠোর ব্যাবস্থা।

COVID-19 করোনা ভাইরাস কি?

করোনাভাইরাস রোগ (COVID-19) একটি নতুন ভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট সংক্রামক রোগ। এটি একটি প্রোটিন প্রজাতির ভাইরাস হওয়ার কারনে এই ভাইরাস মানুষের চোখ, নাক এবং মুখ দিয়ে প্রবেশ করে । এই রোগটি শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থতা (ফ্লুর মতো) হিসাবে কাশি, জ্বর এবং আরও গুরুতর ক্ষেত্রে শ্বাস নিতে অসুবিধে করে।

COVID-19 করোনা ভাইরাস/মহামারি থেকে বাঁচার দোওয়া

اللهم إني أعوذ بك من البرص، والجنون .والجذام، ومن سيئ الأسقام

DUA FOR CORONAVIRUS

উচ্চারনঃ আল্লাহুম্মা ইন্নি আউযুবিকা মিনাল বারসি ওয়াল জুনুনি ওয়াল জুযামি ওয়া মিন ছাইয়্যি ইল আস্কাম।
অর্থঃ- হে আল্লাহ! অবশ্যই আমি তােমার নিকট ধবল, উন্মাদ, কুষ্ঠরােগ এবং সকল প্রকার কঠিন ব্যাধি থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি।
(আবু দাউদ, তিরমিযী- ১৫৫৬)

COVID-19 কীভাবে ছড়িয়ে পড়ে?

করোনভাইরাস রোগে প্রাথমিকভাবে সংক্রামিত ব্যক্তির হাঁচি বা কাশি মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সংক্রামিত ব্যক্তির হাঁচি বা কাশির দ্বারা যে ক্ষুদ্র জলীয় কনা গুলো বেড়িয়ে আসে তা যে সকল পৃষ্ঠের বা কোনও বস্তুর উপরে পড়ে এবং সেই পৃষ্ঠ বা বস্তু কোনও ব্যক্তি স্পর্শ করার পর যখন কেউ তাদের চোখ, নাক বা মুখ স্পর্শ করে তখন সেও এই ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়ে পড়ে।

coronavirus bangladesh update
Stay-Home-Stay-Safe

*আতংকিত না হয়ে নিজেরা সচেতন হই

coronavirus bangladesh
covid-19-helpline

আসুন আমরা করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে নিচের কিছু সতর্কতা মেনে চলি।

১. একটু পর পর সাবান/ হ্যান্ড ওয়াশ দিয়ে হাত ধুতে হবে।
২. যেখানে সেখানে থুতু/ কফ ফেলা যাবে না।
৩. হাচি / কাশি দেয়ার সময় রুমাল/ টিসু দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।
৪. প্রোয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়াই ভালো হবে।
৫. জন সমাগম এড়িয়ে চলতে হবে।(অসুস্থ ব্যক্তিদের সাথে কমপক্ষে (১ মিটার বা ৩ ফুট দূরত্ব এড়িয়ে আপনি নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারেন।)
৬. অসুস্থ হলে ঘরে থাকুন, বাইরে যাওয়া অত্যাবশ্যক হলে নাক-মুখ ঢাকার জন্য মাস্ক ব্যবহার করুন।
৭. অত্যাবশ্যকীয় ভ্রমণে সাবধানতা অবলম্বন করুন।
৮. অপরিষ্কার হাতে চোখ, নাক ও মুখ স্পর্শ করবেন না।
৯. ইতোমধ্যে আক্রান্তএমন ব্যক্তিদের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন।
১০. অনেকেই সৌখিনভাবে পশু/পাখি পোষেন এই পরিস্থিতিতে অসুস্থ পশু/পাখির সংস্পর্শ পরিহার করুন।
১১. মাছ-মাংস, ডিম ভালোভাবে রান্না করে খাবেন।
১২. হাঁচি/কাশির দেয়ার সময় বাহু/ টিস্যু/ কাপড় দিয়ে নাক-মুখ ভালো করে ঢেকে রাখুন এবং ব্যাবহারিত টিস্যু/ কাপড় ডাস্টবিনে ফেলুন।
১৩. প্রচুর পরিমানে ফলের রস ও পর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান করুন।
১৪. ময়লা কাপড় দ্রুত ধুয়ে ফেলুন।
১৫. থাকার ঘর এবং কাজের জায়গা নিয়মিত পরিস্কার করুন।
১৬. মেইন গেইট, কাঁচি গেইট, কলিং বেল সিঁড়ির রেলিং ব্লিচিং পানি স্প্রে করুন ( ২০ লিটার পানিতে ৫ চামচ)
১৭. জরুরী প্রয়োজনে বাইরে গেলে,বাইরে থেকে আসলে ব্লিচিং পানি স্প্রে করুন ( ১০ লিটার পানিতে ১ চামচ)

এটি একটি সচেতনতামুলক পোস্ট আসুন আমরা করোনায় আতংকিত না হয়ে নিজেরা সচেতন হই।

حَسْبُنَا اللَّهُ وَنِعْمَ الْوَكِيلُ

উচ্চারণ: ‘হাসবুনাল্লাহু ওয়া নি’মাল ওয়াকিল।’

অর্থ: ‘আল্লাহই আমাদের জন্য যথেষ্ট এবং তিনিই উত্তম সাহায্যকারী, কার্যসম্পাদনকারী।’ –সূরা আল ইমরান : ১৭৩

কুরআনের বাণী (হাসবুনাল্লাহু ওয়া নি’মাল ওয়াকিল,) এ বাক্যটি ইব্রাহীম আঃ তখন উচ্চারণ করেছিলেন যখন তাকে অগ্নিকুন্ডলীতে নিক্ষেপ করা হয়েছিল
একই বাক্যটি নবী মুহাম্মদ (সাঃ) উচ্চারণ করেছিলেন যখন লোকেরা তাকে বলল, তোমাদের সাথে মোকাবেলা করার জন্য লোকেরা সমাবেশ করেছে বহু সাজ-সরাঞ্জম সুতরাং তাদের ভয় করুন। তিনি বলেছিলেন, হাসবুনাল্লাহু ওয়া নি’মাল ওয়াকিল, নি’মাল মাওলা ওয়া নি‘মান নাছীর। তবে (‘নি‘মাল মাওলা ওয়া নি‘মান নাছীর’) বাক্যটি আল্লাহর প্রশংসাসূচক কুরআনের আয়াত (আনফাল ৪০; হজ্জ ৭৮), যা কোন দো‘আর সাথে যুক্ত করে পাঠ করায় কোন বাধা নেই। যেকোন দুঃখ, কষ্ট, বিপদ, দুশ্চিন্তায় আল্লাহর উপরে পূর্ণ তাওয়াক্কুল প্রকাশের জন্য উপরোক্ত দো‘আটি পাঠ করা যায়।

আল্লাহর ওপর যার আস্থা যত বেশি, তার সফলতার পরিপূর্ণতা তত বেশি। তাওয়াক্কুল একটি গুণ, একটি ইবাদত। এটি অর্জন ছাড়া ঈমান অসম্পূর্ণ থাকে। সে কারণে আল্লাহ ছাড়া অন্য কারও ওপর তাওয়াক্কুল করা যায় না।সবাই এই দোয়া পড়তে থাকবেন সব সময়, ইনশা আল্লাহ !! আল্লাহর সাহায্য খুব নিকটবর্তি।

coronavirus Bangladesh update

চায়নিজরা ইতোমধ্যে এই ভাইরাসের বৈশিষ্ট্য বুঝতে সক্ষম হয়েছে।তাদের বিশেষজ্ঞদের কিছু পরামর্শ অনুবাদ করা হলো-

১. (২০ মিনিট) পর পর গরম তরল জাতীয় জিনিস পান করুন।যেমন- চা,কফি,স্যুপ,হালকা গরম পানি ইত্যাদি।
২. প্রতিদিন হালকা গরম পানির সাথে লেবু বা ভিনেগার অথবা লবন ইত্যাদি মিশিয়ে পান করুন।
৩. বাহির থেকে ঘরে প্রবেশ করলে, কোথাও না বসে গোসল করুন আগে।
৪. প্রতিদিন ব্যবহার্য কাপড় ধৌত করলে ভাল, না পারলে রোদে সূর্যের তাপে রাখুন।
৫. ধাতু জাতীয় পদার্থে এই ভাইরাস ৯ দিন জীবিত থাকে।তাই যেকোন হ্যান্ডেল,ফ্রীজের হ্যান্ডেল, দরজার লক ইত্যাদি কেউ স্পর্শ করার পর ডিটারজেন্ট দিয়ে মুছে ফেলুন।
৬. কিছুক্ষণ পর পর হাত ধৌত করুন সাবান বা ডিটারজেন্ট দিয়ে।
৭. বেশি বেশি শাক সব্জি খান।জিংক সমৃদ্ধ খাবার গ্রহন করুন।
৮. ঠান্ডা জাতীয় পানীয় ও ধূমপান পরিহার করুন
৯. কারো সাথে মুসাফা বা হ্যান্ডশেক আপাতত পরিহার করুন।
১০. গলায় হালকা ব্যাথা বা কোন ব্যতিক্রম কিছু অনুভব করলে,উপরের নির্দেশনাগুলো আরো কঠুরভাবে পালন করুন।

আল্লাহ সুবাহানাল্লাহু তাআলা সবাইকে হেফাজত করুন।

coronavirus Bangladesh update

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে প্রাপ্ত করোনা ভাইরাস নিয়ে ৩১ দফা নির্দেশনাঃ

১) করোনা ভাইরাস সম্পর্কে চিকিৎসা ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এ ভাইরাস সম্পর্কিত সচেতনতা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে হবে।

২) লুকোচুরির দরকার নেই, করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন।

৩) পিপিই সাধারণভাবে সকলের পরার দরকার নেই। চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট সকলের জন্য পিপিই নিশ্চিত করতে হবে। এই রোগ চিকিৎসায় ব্যবহৃত পিপিই, মাস্কসহ সকল চিকিৎসা সরঞ্জাম জীবাণুমুক্ত রাখা এবং বর্জ্য অপসারণের ক্ষেত্রে বিশেষ সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

৪) কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় নিয়োজিত সকল চিকিৎসক, নার্স, ল্যাব টেকনিশিয়ান, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, এ্যাম্বুলেন্স চালকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিশেষ অগ্রাধিকার প্রদান করতে হবে।

৫) যারা হোম কোয়ারেন্টাইনে বা আইসোলেশনে আছেন, তাদের প্রতি মানবিক আচরণ করতে হবে।

৬) নিয়মিত হাত ধোয়া, মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।

৭) নদীবেষ্টিত জেলাসমূহে নৌ-এম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করতে হবে।

৮) অন্যান্য রোগে আক্রান্তদের যথাযথ স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রাখতে হবে।

৯) পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করা। সারাদেশের সকল সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম আরও জোরদার করতে হবে।

১০) আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে দৃষ্টি দিতে হবে। জাতীয় এ দুর্যোগে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ, প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগসহ সকল সরকারি কর্মকর্তাগণ যথাযথ ও সুষ্ঠু সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছেন- এ ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।

১১) ত্রাণ কাজে কোন ধরনের দুর্নীতি সহ্য করা হবে না।

১২) দিনমজুর, শ্রমিক, কৃষক যেন অভুক্ত না থাকে। তাদের সাহায্য করতে হবে। খেটে খাওয়া দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য অতিরিক্ত তালিকা তৈরি করতে হবে।

১৩) সোশ্যাল সেফটিনেট কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

১৪) অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড যেন স্থবির না হয়, সে বিষয়ে যথাযথ নজর দিতে হবে।

১৫) খাদ্য উৎপাদন ব্যবস্থা চালু রাখতে হবে, অধিক প্রকার ফসল উৎপাদন করতে হবে। খাদ্য নিরাপত্তার জন্য যা যা করা দরকার করতে হবে। কোন জমি যেন পতিত না থাকে।

১৬) সরবরাহ ব্যবস্থা বজায় রাখতে হবে। যাতে বাজার চালু থাকে।

১৭) সাধারণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

coronavirus Bangladesh update

১৮) জনস্বার্থে বাংলা নববর্ষের সকল অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে হবে যাতে জনসমাগম না হয়। ঘরে বসে ডিজিটাল পদ্ধতিতে নববর্ষ উদযাপন করতে হবে।

১৯) স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সমাজের সকল স্তরের জনগণকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রশাসন সকলকে নিয়ে
কাজ করবে।

২০) সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তশালী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানসমূহ জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সঙ্গে সমন্বয় করে ত্রাণ ও স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

২১) জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা প্রশাসন ওয়ার্ডভিত্তিক তালিকা প্রণয়ন করে দুঃস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করবেন।

২২) সমাজের সবচেয়ে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী যেমন: কৃষি শ্রমিক, দিনমজুর, রিক্সা/ভ্যান চালক, পরিবহন শ্রমিক, ভিক্ষুক, প্রতিবন্ধী, পথশিশু, স্বামী পরিত্যক্তা/বিধবা নারী এবং হিজড়া সম্প্রদায়ের প্রতি বিশেষ নজর রাখাসহ ত্রাণ সহায়তা প্রদান নিশ্চিত করতে হবে।

২৩) প্রবীণ নাগরিক ও শিশুদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

২৪) দুর্যোগ বিষয়ক স্থায়ী আদেশাবলী (এসওডি) যথাযথভাবে প্রতিপালনের জন্য সকল সরকারি কর্মচারী ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

২৫) নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের উৎপাদন, সরবরাহ ও নিয়মিত বাজারজাতকরণ প্রক্রিয়া মনিটরিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

২৬) আতঙ্কিত হয়ে অতিরিক্ত পণ্য ক্রয় করবেন না। খাদ্যশস্যসহ প্রয়োজনীয় সকল পণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে।

২৭) কৃষকগণ নিয়মিত চাষাবাদ চালিয়ে যাবেন। এক্ষেত্রে সরকারি প্রণোদনা অব্যাহত থাকবে।

২৮) সকল শিল্প মালিক, ব্যবসায়ী ও ব্যক্তি পর্যায়ে নিজ নিজ শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং বাড়ি-ঘর পরিষ্কার রাখবেন।

২৯) শিল্প মালিকগণ শ্রমিকদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে নিজেদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করে উৎপাদন অব্যাহত রাখবেন।

৩০) গণমাধ্যম কর্মীরা জনসচেতনতা সৃষ্টিতে যথাযথ ভূমিকা পালন করে চলেছেন। এক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের গুজব ও অসত্য তথ্য যাতে বিভ্রান্তি ছড়াতে না পারে, সেদিকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

৩১) গুজব রটানো বন্ধ করতে হবে। ডিজিটাল প্লাটফর্মে নানা গুজব রটানো হচ্ছে। গুজবে কান দিবেন না এবং গুজবে বিচলিত হবেন না।

ঘরে বসে জ্বর/ সর্দি / কাশি কিংবা করোনা বিষয়ে ডাক্তারের পরামর্শ পেতে কল করুন

স্বাস্থ্য বাতায়ন
১৬২৬৩ অথবা ৩৩৩

Hot Line Number ( IEDCR )

0192-7711784
0192-7711785
0193-7000011
0193-7110011
0194-4333222

01550064901-05
01401184551
01401184554-56
01401184559-60
01401184563
01401184568

coronavirus bangladesh
Health-information-card

সেনাবাহিনীর দুই কোয়ারেন্টাইন ক্যাম্পের হট লাইন নাম্বার

১। আশকোনা : ০১৭৬৯০১৩৪২০, ০১৭৬৯০১৩৩৫০
২। উত্তরা দিয়াবাড়ি: ০১৭৬৯০১৩০৯০, ০১৭৬৯০১৩০৬২

coronavirus Bangladesh update

জ্বর শর্দি কাশি হাত-পা কাঁপাসহ যে কোনো প্রকার সমস্যা নিয়ে নির্দ্বিধায় ফোন করুন, ২৪ ঘন্টা নন স্টপ সার্ভিস দিতে পাশে আছে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি পাবলিক হেলথ ডিপার্টমেন্ট।

যোগাযোগের নাম্বারগুলো হচ্ছে-

১। ডাঃ রেহান আখতার
মবাইলঃ 01687670413
২। ডাঃ নাজরিন শাহ্‌
মোবাইলঃ 01303316018
৩। ডাঃ নিলয় প্রসাদ
মোবাইলঃ 01718452558
৪। ডাঃ মোঃ আসাদুজ্জামান শুভ
মোবাইলঃ 01301880283
৫। ডাঃ মাহবুবুর রহমান রাজীব
মোবাইলঃ 01533987914
৬। ডাঃ মোহনা খন্দকার
মোবাইলঃ 01953513108
৭। ডাঃ সাইফা ইসলাম
মোবাইলঃ 01883-581829
৮। ডাঃ আতিয়া রহমান
মোবাইলঃ 01772606470
৯। ডাঃ প্রিয়াঙ্কা মন্ডল
মোবাইলঃ 01717020118
১০। ডাঃ শারমিন হক প্রিমা
মোবাইলঃ 01795233354
১১। ডাঃ সাদমান সাকিব
মোবাইলঃ 01675843987
১২। ডাঃ অলিয়া মাহজাবিন
মোবাইলঃ 01796597198
১৩। ডাঃ তানভীর রহমান
মোবাইলঃ 01518-615052
১৪। ডাঃ সাদিয়া আফরিন
মোবাইলঃ 01534301925

coronavirus Bangladesh update

Facebook Comments